November 20, 2018|  
।। বৃহত্তম বরিশাল বিভাগের সর্ব প্রথম আই.টি সংবাদ ভিত্তিক আপনাদের অনলাইন ম্যাগাজিন মিডিয়া ডিজিটাল বরিশাল ডট কম আপনাকে স্বাগতম।।

যে স্থানগুলো গুগল ম্যাপেও পাওয়া যায় না

আজকাল গুগল ম্যাপের সুবাধে আমরা ইচ্ছা করলেই যে কোন স্থান চিহ্নিত করতে পারি। তবে এখনো কিছু স্থান আছে, যেগুলো চাইলেই গুগল ম্যাপে খুঁজে পাওয়া যাবে না। ইকোনমিক টাইমসের একটি প্রতিবেদনে তেমনি সাতটি স্থানের কথা বলা হয়েছে। যে স্থানগুলো গুগল ম্যাপে পাওয়া যায় না। স্থানগুলো হলো, জার্মানি, নেদারল্যান্ডস, স্পেন, তাইওয়ান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত।

১. নেদারল্যান্ডসের ভলক্যাল বিমানঘাঁটি
যে কেউ নেদারল্যান্ডসের ভলক্যাল বিমানঘাঁটিটি খুঁজলেও গুগল ম্যাপে পাওয়া যাবে না। এই স্থানটিকে নিয়ে উইকিলিকসের অভিযোগ, এই বিমানঘাঁটিতে স্নায়ুযুদ্ধের সময়কার ২২টি পারমাণবিক বোমা লুকিয়ে রেখেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

২. ন্যাশনাল সিকিউরিটি ব্যুরো
চীনের জাতীয় নিরাপত্তা ব্যুরোর সদর দপ্তরটিও গুগল ম্যাপে চাইলেও আপনি বের করতে পারবেন না। তাইওয়ানে অবস্থিত এ জায়গায় চীনের কয়েকটি গোয়েন্দা সংস্থার কার্যালয়ও আছে।

৩.ন্যাটোর বিমানঘাঁটি
সামরিক জোট ন্যাটোর একটি বিমানঘাঁটি আছে জার্মানিতে। গিয়েলেনকির্চেন নামের এ জায়গায়টি মাইক্রোসফটের বিংয়ে ব্লক করা নেই। তবে গুগল ম্যাপে ওই জায়গাটি পিক্সেল করে দেখানো হয়।

৪. স্পেনের রোজেজ
লোস ডোলোরেসের মতো স্পেনের আর একটি জায়গাও গুগল ম্যাপে পাওয়া যায় না। এ জায়গাটি থেকে মার্কিন বিমানবাহিনীর ৮৭৫তম আধুনিক বিমানটি নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এখান থেকে ওই বিমানে বিভিন্ন সতর্কবার্তাও পাঠানো হয়। স্পেনের রোজেজ জায়গাটি গুগল ম্যাপে পাওয়া যায় না।

৫.ইসরায়েল
আপনি চাইলেও পুরো ইসরায়েল গুগল ম্যাপে দেখতে পাবেন না। জুম করলে মনে হবে কিছু ভবন কিন্তু আসলে তা নয়।

৬. লোস ডোলোরেস
স্পেনের লোস ডোলোরেসের হ্যালিপোয়েরতো ডি কার্টাগেনা নামের জায়গাটিও চাইলেই আপনি গুগল ম্যাপে পাবেন না। এই জায়গা সম্পর্কে তেমন কোনো তথ্যও খুব একটা জানা নেই কারও। গুগলের স্ট্রিট ভিউয়ে খুঁজলেও পাওয়া যায় না এর অবস্থান।

৭. টেক্সাসের হাডসপেথ কাউন্টি
টেক্সাসের একটি অংশ হলো হাডসপেথ কাউন্টি। সেখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর সীমান্ত এলাকা আছে। এই সীমান্তের প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে মেক্সিকোর সিউদাদ জুয়ারেজ এলাকাটি গুগল ম্যাপে বিকৃত করে রাখা আছে।

সুত্রঃবিডি প্রতিদিন